দারাজের ট্রাভেল প্যাকেজে এবার স্মরণীয় থাকবে আপনার ভালোবাসা দিবস! 0 330

“ভ্রমণের মাধ্যমেই আমি প্রথম বাইরের দুনিয়া সম্পর্কে অবহিত হয়েছি এবং নিজেকে দুনিয়ার অংশ হিসেবে ভাবার পথ খুঁজে পেয়েছি।”

-ইউডোরা ওয়েল্টি

ভ্রমণ কার না ভাল লাগে, আপন গণ্ডী পেরিয়ে অজানাকে জানতে সবারই ভাল লাগে। যেমনটা মনিষীরা বলে থাকেন, ভ্রমণে বাড়ে আত্মবিশ্বাস, ভ্রমণেই বাড়ে জ্ঞান। আর ভ্রমণ পিপাসু মানুষের আত্মবিশ্বাসের পালে আরেকটু বাড়তি হাওয়া যোগাতেই মূলত দারাজ বাংলাদেশের ট্যুর ও ট্রাভেল ক্যাটাগরির এই বিশেষ আয়োজন। ভালোবাসা দিবসের বাকি আর মাত্র কয়েকটা দিন। আর তাই আসছে দারাজ ভালোবাসা দিবস ক্যাম্পেইনে আপনার ভালোবাসার মানুষকে বাড়তি আনন্দ দিতেই দারাজ দিচ্ছে সেরা সব ট্রাভেল ও ট্যুর প্যাকেজ ভাউচার। দারাজের যে ট্রাভেল প্যাকেজের আওতায় ভালোবাসা দিবসে আপনার প্রিয়জনকে নিয়ে ঘুরে আসতে পারেন পাঁচটি বিশেষ স্থান থেকে।

 

দারাজের ট্রাভেল প্যাকেজের আওতায় ভালোবাসা দিবসে ভ্রমণের প্ল্যান করতে পারেন ৫ টি বিশেষ স্থানেঃ

দিল্লী-শিমলা-মানালি-চন্ডিগড় ট্যুর প্যাকেজঃ 

shimla manali tour package

শিমলা মানালি ভ্রমণ প্রসঙ্গ আসলেই সবার আগে বিবেচনায় চলে আসে উত্তর ভারতের পাহাড়ি প্রদেশ খ্যাত হিমাচল প্রদেশ ভ্রমণ এর প্রসঙ্গটি। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক অপরূপ দেবভুমি হিসেবে খ্যাত এই হিমাচল প্রদেশ। আর হিমাচল প্রদেশেরই দুটি সুন্দর শহর হল শিমলা ও মানালি। হিমাচলের পাহাড়ি স্বর্গরাজ্য সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২২০০ মিটার উপরে অবস্থিত, যা নান্দনিক সৌন্দর্য্যের মোড়কে যুগের পর যুগ আপন স্বকীয়তায় দাঁড়িয়ে আছে। একেক সিজনে শিমলা ও মানালি একেক রকম রূপ ধারণ করে। তবে বর্ষার সিজন এড়িয়ে বছরের যেকোন সময়েই ঘুরতে যেতে পারেন এই পাহাড়ি ভূমিতে।

দারাজে বর্তমানে ৫ রাত ও ৬ দিনের একটি ট্যুর প্যাকেজ আছে, যে ট্রাভেল প্যাকেজের মাধ্যমে আপনি দিল্লী থেকে যাত্রা শুরু করে শিমলা ও মানালি ভ্রমণ শেষে চন্ডিগড় থেকেও ঘুরে আসতে পারবেন। বুঝতেই পারছেন বিশাল এক ট্যুর প্যাকেজ এটি, তবে শিমলা মানালি ভ্রমণ খরচ তুলনামূলকভাবে কমই বলা চলে।

কাঠমন্ডু ও পোখারা ট্যুর প্যাকেজঃ 

kathmandu pokhara tour package

পাহাড় দেখতে খুব বেশি মন চাইলে ঘুরে আসতে পারেন বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টের দেশ থেকে। পর্বতের লীলাভূমি ও নেপালের প্রাণকেন্দ্র কাঠমন্ডুকে বিশ্বের সবচেয়ে দর্শনীয় স্থান সমূহের একটি বলা হয়ে থাকে। কাঠমন্ডুতে ঘোরাঘুরির জন্য যেসব আদর্শ স্থানের কথা না বললেই নয়, বসন্তপুর দুর্বার স্কয়ার, গার্ডেন অফ ড্রিমস, লিম্বিনি, কোপান, সেনচেন মনাস্ট্রির মতো প্রচুর দর্শনীয় স্থানে ঘোরার সুযোগ পাবেন সেখানে। কাঠমুন্ডু হতে ৩২ কিলোমিটার দুরত্বেই বিশ্বের সবচেয়ে উচু গ্রাম নাগরকোট, যা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ২১৭৫ মিটার উঁচুতে অবস্থিত। ভোর বেলায় সূর্যদয়ের সময় আপনার হোটেলের ব্যালকনি থেকে এভারেস্ট এর শৃঙ্গ দেখতে পারবেন। ভোরের সূর্যের আলো শুভ্র তুষারবেষ্টিত এভারেস্ট শৃঙ্গে পড়ার সাথে সাথেই আশেপাশের সবকিছু অদ্ভুত মায়াবী সোনালী বর্ণ ধারণ করে। আমাদের প্রতিদিনের পৃথিবীতে প্রকৃতির এত অদ্ভূত সুন্দর দৃশ্য দেখার সৌভাগ্য খুব কমই জোটে। নাগারকোট থেকে পোখারা ২২৬ কি.মি. পথ। পোখারায় উপভোগ করতে পারবেন প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য, সেই সাথে রিভার রাফটিং, প্যারাগ্লাইডিং, কায়াকিং, বাঞ্জি জাম্পিং , ক্যানিং ইত্যাদির সুবিধা তো আছেই। এছাড়া পোখারার বিখ‍্যাত আকর্ষণ হল “ফেওয়া লেক”। পোখারায় সারাংকোট নামের এক অপরূপ সুন্দর জায়গা আছে। মূল পোখারা থেকে ৪৫ মিনিট দুরত্বে জায়গাটা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১৬০০ মিটার উঁচুতে অবস্থিত। ট্রেকিং ব্যতীত পোখারা শহর থেকে এভারেস্ট দেখার জন্য সবচেয়ে সুন্দর স্থান এটাই। বলা হয়ে থাকে, প্রকৃতি তার সব রূপ ও রঙ মেলে ধরেছে এই স্থানটিতে।

নেপাল ভ্রমণ প্যাকেজ দারাজে এখন খুবই সহজসাধ্য একটা বিষয়, কেননা দারাজ আপনাকে দিচ্ছে ৪ রাত ও ৫ দিনের একটি কাঠমন্ডু ও পোখারা ট্যুর প্যাকেজ। দারাজের এই ট্রাভেল প্যাকেজে এখন নেপাল ভ্রমণ খরচ বেশ সাশ্রয়ীই বলা চলে। আপনার নেপাল ভ্রমণকে আরও সাচ্ছন্দময় করতে এই ট্রাভেল প্যাকেজের মূল্যের সাথে এয়ার ফেয়ারও যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। বিস্তারিত তথ্য জানতে পারেন দারাজ অনলাইন শপ ওয়েবসাইট থেকে।

enjoy special discount offers from daraz valentine's day sale campaign

বালি-ইন্দোনেশিয়া ট্যুর প্যাকেজঃ 

bali indonesia tour package

ইন্দোনেশিয়ার একটি একক দ্বীপ হচ্ছে বালি, বালির রাজধানী দেনপাসার। ব্যাপক পর্যটকপ্রিয়তা অর্জনকারী বালির সবচেয়ে বিখ্যাত ও দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে আছে এখানকার অপরূপ সমুদ্র সৈকত। তবে বালির অন্যতম জাঁকজমকপূর্ণ স্থানগুলোর একটি হল কুটা। আর বালির কুটা সমুদ্র সৈকতের পানির রং গাঢ় নীল। যেখানে উলুওয়াটু সানসেট পয়েন্টে রয়েছে সূর্যাস্ত দেখার অপার সুযোগ। বালিতে রয়েছে পর্যটকদের মন ভরিয়ে দেওয়ার মত কিছু বিষয়। বিশেষ করে সমুদ্রে উইন্ড সার্ফিং, সুন্দর গাছ-গাছালিতে ঘেরা ঘন সবুজ বনানী, কারুকার্যময় মন্দির ও লোভনীয় সি-ফুড এসব কিছু মিলিয়ে বেশ ভালো সময় কাটাতে পারবেন সেমিন্যাক বিচে। অবশ্য বালির একেকটি এলাকার সমুদ্র সৈকত একেক রকম। বালিতে ‘লোভিনা’ নামক একটি সমুদ্র সৈকত রয়েছে, যেটিকে বন্য ডলফিনের অভয়ারণ্য বলা হয়। এছাড়াও বালিতে আছে জীবন্ত আগ্নেয়গিরি। সমুদ্র সৈকতের কোল ঘেঁষে বেশ কিছু দূরে বালি প্রদেশের কিন্তামানি অঞ্চলে দেখা মিলবে জীবন্ত আগ্নেয়গিরি বাতুরের। এখানটায় উঁচু পাহাড় ঘেঁষা বাতুর হ্রদ পর্যটকদের জন্য অন্যতম এক আকর্ষণীয় স্থান হিসেবে পরিচিত। সব মিলিয়ে সবুজ ধানক্ষেত, সুনীল সমুদ্র, বাহারি স্থাপত্যের প্রাচীন মন্দির, বন্য ডলফিন ও হাজার প্রজাতির পাখি প্রকৃতির এই ভয়ংকর সুন্দর দ্বিপকে বিশ্বের অনন্য সাধারণ দর্শনীয় স্থানে পরিণত করেছে। মূলত এসব কারনেই পর্যটকদের কাছে বালি এক অন্যরকম আকর্ষণ।

কম খরচে ইন্দোনেশিয়া ভ্রমণ এখন কেবল দারাজেই সম্ভব, দারাজের ৩ রাত ও ৪ দিনের বালি ও ইন্দোনেশিয়া ভ্রমণ খরচ এখন অনেকটা স্বল্প পরিসরেই উপভোগ করতে পারবেন। দারাজের এই লোভনীয় ট্রাভেল প্যাকেজের কারনে বর্তমানে ইন্দোনেশিয়া ট্যুর অনেক সহজসাধ্য ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। 

মালে ও কলম্বো – শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ ট্যুর প্যাকেজঃ

maldives sri lanka honeymoon packages

ভ্রমণপিপাসুদের জন্য শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপে আছে বেশ কিছু অসাধারণ দর্শনীয় স্থান ভ্রমণের সুযোগ। ট্রাভেল প্যাকেজটির সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হচ্ছে শ্রীলঙ্কার দর্শনীয় স্থান কলম্বো-ক্যান্ডি-নিউয়ারেলিয়া-বেনতোতা সমুদ্র সৈকতে ভ্রমণ। যেখানে থাকছে বিস্ময়কর বেনতোতা সমুদ্র সৈকত ঘুরে দেখার সুযোগ। শ্রীলঙ্কা ভ্রমণের বাড়তি আকর্ষণ হিসেবে আরও থাকছে পুরনো বৃটিশ ভবন এবং শ্রীলঙ্কার ঐতিহ্যবাহী স্থাপত্য, হাতির অভয়ারণ্য, সিলন চা জাদুঘর, টেম্পল অব টিথ, ক্যান্ডি লেক ও নৌকা ভ্রমণ এবং যুদ্ধ সমাধীক্ষেত্র ভ্রমণের সুযোগ। বেনতোতা সমুদ্র সৈকতে ভ্রমণ পিপাসুরা উপভোগ করতে পারবেন আকর্ষণীয় স্নোরকেলিং এবং স্কুবা ডাইভিংয়ের সুযোগ। এছাড়াও ভ্রমণকারীরা সেখানে ডিনার ক্রুজ, সী টার্টল কনজারভেশন প্রজেক্ট, জু পার্ক ট্যুর এবং বেনতোতা সৈকতে প্যারাগ্লাইডিং, প্যারাসাইলিং এর সুবর্ণ সুযোগ উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়াও পর্যটকরা কলম্বো-ক্যান্ডি সিনিক রোড ভ্রমণ সহ মিরিসায় তিমি ও ডলফিন দেখার সুযোগ পাবেন। 

মালদ্বীপ ভ্রমণের জন্যও রয়েছে সকল প্রকার সুযোগ-সুবিধা। মালদ্বীপ ভ্রমণ এর অংশ হিসেবে থাকছে ওয়াইড রেঞ্জ রিসোর্ট সহ জেনারেল আইল্যান্ড রিসোর্ট, বিশেষ করে ফান আইল্যান্ড, প্যারাডাইস আইল্যান্ড, সান আইল্যান্ড ও রয়েল আইল্যান্ড ভ্রমণের সুযোগ। এছাড়াও চেইন অব সেনতারা, ফুরাভেরি, সিনামন সহ সব আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্রে ভ্রমণের সুযোগ অবশ্যই হেলায় হাতছাড়া করতে চাইবেন না। মালদ্বীপ ভ্রমণের সবচেয়ে বড় আকর্ষণগুলোর একটি হল সী-প্লেন অথবা নন-মটরোরাইজড নৌকায় সুনীল সাগরে ভেসে বেড়ানো। অসংখ্য ছোট-বড় দ্বীপে ঘেরা রাষ্ট্র মালদ্বীপের মালেতে অনন্য সুন্দর নীল জলরাশির সন্ধান পেতে সেখানে পাড়ি জমাতে পারেন অত্যন্ত স্বল্প খরচে। 

দারাজের ৪ রাত ও ৫ দিনের শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ ট্রাভেল প্যাকেজ এখন আপনাকে দিচ্ছে খুবই কম খরচে শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ ভ্রমণ এর লোভনীয় সুযোগ। দারাজের যে ট্যুর প্যাকেজে এখন শ্রীলঙ্কা ভ্রমণ খরচ ও মালদ্বীপ ভ্রমণ খরচ খুবই স্বল্প পরিসরে উপভোগের নিশ্চয়তা থাকছে। তাই কোন বাড়তি চিন্তা ছাড়াই এখন মালে ও কলম্বো ভ্রমণ সারতে পারেন দারাজের চমৎকার এই ট্রাভেল প্যাকেজটির মাধ্যমে। 

কায়রো ও আলেকজান্দ্রিয়া – মিশর ট্যুর প্যাকেজঃ 

cheap Egypt tour packages

মিশরকে বলা হয় প্রাচীন সভ্যতার আধুনিক স্থাপত্য শৈলী ও নিদর্শনের রহস্যময় লীলাভূমি, বিশ্বের সপ্তাশ্চর্যের অন্যতম নিদর্শন পিরামিডের দেশ বলা হয় মিশরকে। আর প্রাচীন নিদর্শনের লীলাভূমি খ্যাত শহর কায়রো ও আলেক্সান্দ্রিয়া বাদে মিশর ভ্রমণ পুরোই অসম্পূর্ণ থেকে যাবে। প্রাচীনত্বে ঘেরা শহর কায়রোতে দর্শনীয় স্থানের কোন অভাব নেই। এক হাজার মিনারের শহর হিসাবে পরিচিত কায়রোতে আছে ফ্যারাও, গ্রীক, ব্যাবিলয়ন এবং রোমানদের স্থাপত্যের নিদর্শন। বিশ্বের সবচেয়ে স্বীকৃত ল্যান্ডমার্ক – গিজার পিরামিড পরিদর্শনের সুযোগ কোন পর্যটকই মিস করতে চায় না। স্পিংক্স সহ কূফুর পিরামিড, যেটি প্রাচীন বিশ্বের সপ্তাশ্চর্যের একটি অংশ, কায়রোতে এটির দেখা মিলবে। এছাড়া ফারাও রাজাদের নির্মিত মিশরীয় মিউজিয়াম, মেমফিশ, দূর্গ, সাক্কারা, কপটিক মিউজিয়াম, খান ঈল-খালিলি প্রভৃতি প্রাচীন স্থাপত্য নিদর্শন উপভোগ করতে পারবেন বিশ্বের অন্যতম পুরনো শহর কায়রোতে। 

আলেকজান্দ্রিয়াকে “দ্য পার্ল অফ মেডিটারেনিয়ান” বা “ভূমধ্য সাগরের মুক্তো” নামে অবহিত করা হয়। মিশরের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর আলেকজান্দ্রিয়াতেও রয়েছে বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান। প্রাচীন ধ্বংসাবশেষের প্রাচুর্য্যতা ও তৎকালীন মিশরীয় সভ্যতা শহরটিকে পর্যটকদের কাছে আরো আকর্ষণীয় করে তুলেছে। আলেকজান্দ্রিয়ার স্থাপত্য শৈলীর নিদর্শনগুলোর সাক্ষী হিসেবে বর্তমানে পর্যটকদের আকর্ষণের কেন্দ্রে রয়েছে ফোর্ট কৈৎব্যে, বিবলিওথেকা আলেকজান্দ্রিয়া, গ্রেইকো-রোমান মিউজিয়াম, পম্পেই-এর স্তম্ভ, কাম-ঈল-শূক্কাফার রোমান সমাধি ও কোর্নিচে। এরকম আরও অসংখ্য প্রাচীন মিশরীয় স্থাপত্যের আকর্ষণে হারিয়ে যেতে পারেন আলেকজান্দ্রিয়াতে।

কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই স্বস্তির মিশর ভ্রমণের অভিজ্ঞতা পেতে এখন চোখ রাখতে পারেন দারাজের ৪ রাত ও ৫ দিনের কায়রো ও আলেকজান্দ্রিয়া ভ্রমণ প্যাকেজে। যেখানে সবচেয়ে কম খরচে মিশর ভ্রমণের নিশ্চয়তা ছাড়াও থাকছে হোটেল ও যাতায়াত ব্যবস্থার সকল সুযোগ-সুবিধা। 

ট্যুর বা ট্রাভেল সংক্রান্ত সকল তথ্যাদি এখন দারাজ ওয়েবসাইট থেকেই সংগ্রহ করতে পারবেন খুব সহজে। এছাড়া ট্রাভেল ব্যাগ ও লাগেজ সহ যাবতীয় ট্রাভেল এক্সেসরিজ এখন দারাজ থেকেই সাশ্রয়ী মূল্যে সংগ্রহ করতে পারেন। আর দারাজ ভ্যালেন্টাইন্স ডে ক্যাম্পেইন থেকে বাড়তি ছাড় উপভোগ করতে ক্যাম্পেইনের সেরা ডিল গুলোর উপর নজর রাখতে পারেন।

Previous ArticleNext Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

css.php