যেভাবে অনলাইন মোবাইল ফোন ব্যবসাকে সম্মৃদ্ধ করতে পারবেন 0 475

বাংলাদেশের বাজার ব্যবস্থায় মোবাইল ফোনের ব্যবসা সবসময়ের জন্যই অনেক বড় ব্যাপার। মোবাইল ফোনের গ্রাহকরা সবসময় সাধ্যের মধ্যে সবচেয়ে সেরা দামে ভালো ফিচার সম্মৃদ্ধ নতুন ফোনের খোঁজ করে থাকেন। আর এটা তো বলার অপেক্ষাই রাখে না, মোবাইল ফোনের ব্যবসা বর্তমান প্রেক্ষাপটে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা।

কিন্তু মোবাইল বিক্রয়ে আপনি সত্যিকার অর্থে যেরকম লাভের প্রত্যাশা করে থাকেন, সবসময় সেটা নাও হতে পারে। বস্তুত, মোবাইল ব্যবসার জন্য একটা বড় অংকের পুঁজিরও দরকার হয়, যা অনেক বিক্রেতার জন্যই অনেক ব্যয়বহুল একটা বিষয়। তবে এ ধরণের যেকোন ব্যবসায় সফল হতে হলে অবশ্যই কিছু কৌশলগত বিষয়ে নজর না রাখলেই নয়।

যেসব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আপনার এখনই কাজ শুরু করা দরকারঃ

একটি ব্যবসায়িক ফর্দ বা তালিকা তৈরী করে ফেলুন

১। ক্যাটাগোরির বিষয়ে ভাবুন

আপনি যদি ফোনের বিভিন্ন ক্যাটাগোরি অনুসারে একটি নির্দিষ্ট মাত্রার মোবাইল ফোন ও এক্সেসরিজ এর ব্যাপারে প্ল্যান করে থাকেন, তাহলে সেটা আপনার ব্যবসার জন্য খুবই সহায়ক হবে। আপনি ব্র্যান্ডের ভিত্তিতেও ফোনগুলোকে বিভিন্ন ক্যাটাগোরিতে ভাগ করে নিতে পারেন। আর এক্সেসরিজের জন্য ডিভাইসের ধরণ অনুসারে সেগুলোর কিছু ক্যাটাগোরি ভাগ করে নিতে পারেন; উদাহরণস্বরূপ, মোবাইল কেস ও কভার, হেডফোন, পাওয়ার ব্যাংক, মেমোরি কার্ড এবং আরও অনেক কিছু।

২। দ্রব্য মূল্য নির্ধারণ করুন

এটা এমনই এক অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যার মাধ্যমে ক্রেতারা তাদের ক্রয়ের সিদ্ধান্তটি বিবেচনা করে থাকে। তাই ভেন্ডোর থেকে আপনি যে দামটি পাচ্ছেন এবং আপনার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠান যে দাম অফার করছে, সেগুলো যাচাই করে দাম নির্ধারণে আপনাকে একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে আসতে হবে।

৩। পণ্যের ছবি রেডি করুন

ক্রেতাকে আকৃষ্ট করতে পণ্যের ছবি সবসময় বড় ভূমিকা পালন করে। অবশ্য একই পণ্যের জন্য খুব বেশি ছবির দরকার নেই কিন্তু কয়েকটি হাই কোয়ালিটি সম্পন্ন ছবিই আপনার জন্য হবে যথেষ্ট।

৪। পণ্যের বিবরণ লিখুন

আপনি যখন অনলাইনে কোন পণ্য বিক্রয় করবেন, তখন পণ্যের বিবরণ খুবই গ্রুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। আর যদি সেটা মোবাইল ফোন হয়, তাহলে তো আরো বেশি মাত্রায় গুরুত্ব বহন করে। আর এই পণ্য বিবরণে অবশ্যই ফোনের ফিচার ও সুবিধার কথা উল্লেখ থাকতে হবে। তবে সবচেয়ে ভাল হয় আপনি যদি এসইও কিওয়ার্ড অপটিমাইজ করে দিতে পারেন।

যেসব পেমেন্ট মেথড বেছে নিতে পারেন

আপনি যেহেতু অনলাইনে মোবাইল বিক্রয় করছেন, আপনাকে অবশ্যই ক্যাশ অন ডেলিভারি ও অনলাইন পেমেন্টের মত দুইটি প্রধাণ পেমেন্ট মেথড বেছে নিতে হবে। বস্তুত আপনার অনলাইন স্টোরের জন্য একটি নিরাপদ পেমেন্ট অপশন খুবই দরকার। আপনার জেনে রাখা ভাল, ক্যাশ অন ডেলিভারি ক্রেতাদের জন্য অনেকাংশে পছন্দনীয়।

কিছু শিপিং টিপস জেনে রাখা ভাল

ই-কমার্স শিপিং অপশনগুলো সকল গ্রাহকের জন্যই সুবিধাজনক হওয়া খুবই দরকার। এক্ষেত্রে ক্রেতাকে কিছু বিষয় জানিয়ে রাখা খুবই জরুরী বিশেষ করে আপনি কোন এলাকায় পণ্য ডেলিভারি দিতে পারবেন না, তাদেরকে শিপিং এর সর্বশেষ আপডেট সম্পর্কে জানানো এবং পণ্যটি ডেলিভারির একটি আনুমানিক সময় সম্পর্কে ক্রেতাকে অবগত করা। আরো বেশি সংখ্যক ক্রেতাকে আকৃষ্ট করতে আপনি একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক অর্ডারে ফ্রি ডেলিভারির ঘোষণাও মাঝে মধ্যে দিয়ে দিতে পারেন!

যেভাবে আপনার স্টোরে ট্র্যাফিক বৃদ্ধি করতে পারবেন

এটা একটা কৌশলগত মাধ্যম, যার মাধ্যমে আপনার অনলাইন স্টোরে ট্র্যাফিক বাড়াতে পারবেন। অনলাইন স্টোরে বা শপে শুধু ভাল কিছু পণ্য থাকাটাই যথেষ্ট নয়, যদিনা আপনি ট্র্যাফিককে আকৃষ্ট করতে পারেন।

কিছু যুগোপযোগী ধারণা সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাকঃ

১। সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসইও)

এসইও করার মাধ্যমে আপনার ডোমেইনকে অপটিমাইজ করে অর্গানিকভাবে ট্র্যাফিক আনতে পারবেন। এটি একটি সময় সাপেক্ষ ব্যাপার; আপনার কন্টেন্টে খুবই কৌশলগতভাবে কিছু কিওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে এবং গ্রাহক যখন সার্চ ইঞ্জিনে কোন পণ্যের সন্ধান করবে, আপনার কন্টেন্টের কিওয়ার্ডের সাথে সেটা মিলে গেলেই তা গ্রাহকের সার্চ ইঞ্জিন রেজাল্ট পেজে একটি অন্যতম টপ রেজাল্ট হিসেবে প্রদর্শিত হবে।

২। কন্টেন্ট মার্কেটিং

সম্ভাব্য ক্রেতার আগ্রহের কেন্দ্রে থাকতে হলে আপনার দরকার কিছু তথ্যমূলক ব্লগ পোস্ট। ব্লগ আর্টিকেলে আপনার স্টোর লিঙ্ক যুক্ত করে ট্র্যাফিককে ব্লগ থেকে আপনার স্টোরে ধাবিত করতে পারবেন অনায়াসে। আপনার ব্র্যান্ড ভিজিবিলিটি ও শপ ট্র্যাফিক বাড়ানোর ক্ষেত্রে কন্টেন্ট মার্কেটিং একটি আদর্শ মাধ্যম হতে পারে।

এসব মেথড খুব ভালভাবে অনুসরণের ফলে আপনার অনলাইন মোবাইল স্টোরের বিক্রয় আরও বহু গুণে বৃদ্ধি পাবে।

দারাজ-সেলার মৈত্রী প্রোগ্রাম আপনাকে দিচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের সেলার হওয়ার সুবর্ণ সুযোগ। রেজিষ্ট্রেশনের মাধ্যমটিও খুবই সহজ ও কম সময় সাপেক্ষ।

দারাজ-সেলার মৈত্রী প্রোগ্রামের সুবিধাসমূহ একনজরেঃ

  • লক্ষাধিক কাস্টমারের সাথে যুক্ত হতে পারবেন।
  • কোন লিস্টিং ফি নেই, বিক্রয় শুরু করার পরও পরিশোধ করতে পারবেন।
  • আপনার অর্ডারের জন্য সবচেয়ে দ্রুত ও বিশ্বস্ত শিপিং সুবিধা পাচ্ছ।
  • আপনি সময়মত নিরাপদ পেমেন্টের বিষয়ে আশ্বস্ত থাকতে পারেন।
  • পণ্য নিষ্পত্তি সহ অন্যান্য কাজের সার্বিক সহযোগিতায় আপনাকে প্রোফেশনাল সার্ভিস প্রদান করা হবে।

এত সুবিধার পরও আপনি কিসের অপেক্ষায় আছেন ?

আজই দারাজের সেলার হয়ে যান এবং দারাজে বিক্রয় শুরু করে দিন !

পোস্টটি ইংরেজীতে পড়ুনঃ আপনিও পারবেন দারাজের মাধ্যমে ব্যবসাকে এগিয়ে নিতে!

install daraz seller app

Previous ArticleNext Article

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

css.php