August 11, 2022 5:44 AM Thursday
ludo lakhpoti tournament of daraz bd

প্রথমবারের মত বাংলাদেশে আয়োজিত হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম লুডু টুর্নামেন্ট!

দারাজ ফার্স্ট গেইমস (ডিএফজি) -তে অনুষ্ঠিত এই লুডু লাখপতি টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ ছাড়াও পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও নেপালের খেলোয়াড়রা অংশ নিতে পারবেন।  

আলিবাবা গ্রুপের অঙ্গ সংগঠন এবং দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ বাংলাদেশ (daraz.com.bd) তাদের অ্যাপের গেইমিং প্ল্যাটফর্ম দারাজ ফার্স্ট গেইমস (ডিএফজি)-তে প্রথমবারের মত আয়োজন করছে বাংলাদেশ,পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও নেপালের মধ্যকার দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বৃহত্তম আন্তর্জাতিক লুডু টুর্নামেন্ট। এই অনলাইন টুর্নামেন্টের মাধ্যমে এবার বাংলাদেশি খেলোয়াড়রা একযোগে খেলবে পাকিস্তানি, শ্রীলঙ্কান ও নেপালি খেলোয়াড়দের হারানোর লক্ষে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং ইভেন্ট ইলেভেন ইলেভেন উপলক্ষ্যে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টে ৩০ জন বিজয়ীর জন্য থাকছে ৫ লাখ টাকার প্রাইজ পুল – যেখানে প্রথম বিজয়ীর জন্য পুরষ্কার হিসেবে থাকছে তিন লক্ষ টাকার ভাউচার, দ্বিতীয় বিজয়ীর জন্য থাকছে ৫০ হাজার, তৃতীয় বিজয়ীর জন্য থাকছে ২৫ হাজার ও চতুর্থ বিজয়ীর জন্য থাকছে ১৫ হাজার টাকার সমমূল্যের ভাউচার। এছাড়াও পরবর্তী বিজয়ীদের জন্য থাকছে ১ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকার ভাউচার। তুমুল প্রতিযোগিতাপূর্ণ এই লুডু লাখপতি টুর্নামেন্টে অংশ নিতে আগ্রহীদের রেজিস্ট্রেশন চলবে ১ থেকে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত যেখানে ৪টি দেশ মিলিয়ে সর্বমোট আড়াই লাখ মানুষ রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। তাই স্লট পূরণ হয়ে যাওয়ার আগেই দ্রুত রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হবে  ১১ থেকে ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত, যেখানে  ৭টি বা তার বেশি নকআউট রাউন্ডে লুডু খেলে জিততে হবে। 

লুডু লাখপতি টুর্নামেন্টে রেজিস্ট্রেশন করতে ক্লিক করুন এই লিঙ্কে !

গেইমে রেজিস্ট্রেশন করবেন যেভাবেঃ

  • দারাজ অ্যাপ ডাউনলোড করুন 
  • আপনার দারাজ অ্যাকাউন্টে লগ-ইন করুন
  • দারাজ অ্যাপ থেকে দারাজ ফার্স্ট গেমের আইকনটি সিলেক্ট করুন এবং রেজিস্ট্রেশন পেইজে প্রবেশ করুন।
  • রেজিস্ট্রেশন ফর্মে আপনার নাম, দারাজে রেজিস্টার্ড ই-মেইল অ্যাড্রেস ও ফোন নাম্বার সঠিকভাবে প্রবেশ করান। 
  • সাবমিট বাটনে  ক্লিক করুন। 
  • আপনার তথ্য গুলো সঠিক হলে আপনি সফল রেজিস্ট্রেশনের একটি এস এম এস পাবেন।  
  • টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগে একটি এস এম এস নোটিফিকেশন পাবেন।

daraz bd ludo tournament

গেইমে অংশগ্রহণ করবেন যেভাবেঃ

  •  ইউজার গেমটিতে যোগ দিতে একটি এসএমএস পাবেন যেখানে প্রতিটি রাউন্ডের জন্য গেইমের সময় উল্লেখ করা থাকবে। 
  • ইউজারের দারাজ হোম পেইজ (daraz.com.bd) থেকে দারাজ ফার্স্ট গেইমের (ডিএফজি) আইকনটি সিলেক্ট করতে হবে এবং ডিএফজি তে প্রবেশ করতে হবে
  • এরপর লুডু টুর্নামেন্ট ব্যানারে ক্লিক করতে হবে
  • নিচের টুর্নামেন্ট ব্যানারে ক্লিক করতে হবে। 
  • প্লে বাটনে ক্লিক করতে হবে
  • কিছুক্ষণের মধ্যে খেলা শুরু হয়ে যাবে
  • প্রতি ম্যাচ থেকে শুধুমাত্র ১ম বিজয়ী পরবর্তী রাউন্ডে যাবেন

এই উপলক্ষ্যে দারাজ বাংলাদেশের (daraz.com.bd) হেড অফ ট্রাফিক অপারেশনস বারিশ খন্দকার বলেন, “গত বারের বাংলাদেশ ভার্সেস পাকিস্তান লুডু টুর্নামেন্টে বিজয়ী হয়েছে বাংলাদেশ, তাই এইবার রিম্যাচ চায় পাকিস্তান। সাথে লড়াই করতে প্রস্তুত আরো দুটি দেশ – শ্রীলঙ্কা আর নেপাল। তাই দারাজ ১১.১১ সেল ক্যাম্পেইনকে সামনে রেখে খেলোয়াড়দেরকে গতানুগতিক ধারা থেকে বের করে আনতে ও তাদের একটি অসাধারণ অভিজ্ঞতা প্রদান করতে এই প্রথমবারের মত আমরা আয়োজন করছি এই চার দেশীয় আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট। আশা করছি এই প্রতিযোগিতায় উক্ত দেশের সকল অংশগ্রহণকারীদের মাঝে টানটান উত্তেজনা থাকবে”।

Daraz Hands Prize to The Winners of Daraz Ad Creator Hunt (2020)

Total Prize Money Worth BDT 1,00,000!

Daraz Bangladesh, a concern of Alibaba Group and the country’s largest e-commerce platform, organized the ‘Ad Creator Hunt-2020’ competition’s prize-giving ceremony.

This was a platform for the young minds to showcase their creativity by making advertisements related to Daraz Online Shopping and Bengali New Year.

The first 3 teams won total prize money of 1,00,000 Taka and certificates. In this Ad making competition, over 30 teams have participated from which, the voters from the Facebook audience and experienced judges from Daraz announced the winner.

Team- IBA from Rajshahi University in the first position received 50,000-taka prize money followed by Team- Hira in the second position got 30,000 Taka and Team Taef in the third position got 20,000 Taka.

The winners have also received certificates alongside prizes. The prize has been distributed among the winners by the Head of Retail Commercial of Daraz Bangladesh, Mr. Asif Anjum Ayon.

On the occasion the Head of Marketing of Daraz Bangladesh Limited, Syed Ahmed Abrar Hasnain mentioned, “Daraz AD creator hunt was organized to provide a platform for all the creative youngsters who do not have a proper platform to showcase their talent. We wanted to ensure that these brilliant minds showcase their creativity in the right channel and get a chance to work with the most versatile marketing team of the country”.

daraz launched dExports

আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যবসা প্রসারে দারাজের নতুন উদ্যোগ ডিএক্সপোর্ট!

বাংলাদেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসাগুলোকে আন্তর্জাতিক বাজারে পৌঁছে দিতেই দারাজের নতুন আয়োজন “ডিএক্সপোর্ট” 

সম্প্রতি কোভিড-১৯ মহামারীটি ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ায় সারা দেশের অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর ফলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীরা। এই সঙ্কটপূর্ণ অবস্থায় দেশের এসএমই খাতকে সহায়তার জন্য আলিবাবা গ্রুপের অঙ্গ সংগঠন দারাজ বাংলাদেশ “ডিএক্সপোর্ট” (দারাজ এক্সপোর্ট) নামক একটি নতুন উদ্যোগ চালু করেছে। আলিবাবা গ্রুপ এবং দারাজ বাংলাদেশ লিমিটেডের মধ্যকার সহযোগী সম্পর্কের ফলস্বরূপ, ডিএক্সপোর্ট প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে এখন বাংলাদেশের স্থানীয় বিক্রেতারা সহজেই আন্তর্জাতিক বাজাররের অ্যাক্সেস পাবে এবং বিশ্বজুড়ে কয়েক লক্ষ ক্রেতার সাথে সংযোগ স্থাপনের একটি বিশাল সুযোগ পাবে।

ডিএক্সপোর্ট (দারাজ এক্সপোর্ট) প্রোগ্রামের মাধ্যমে একজন বাংলাদেশী সেলার বা বিক্রেতা বিশ্বের বৃহত্তম অনলাইন ওয়েবসাইট আলিবাবা ডটকমের বিশেষ অ্যাক্সেস উপভোগ করতে পারবে। এই বিশেষ অ্যাক্সেসটি ব্যবহার করে স্থানীয় বিক্রেতারা দেশীয় পণ্যগুলির বিক্রয়ের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারবে। এটি রফতানির সুযোগ, সরকারী রাজস্ব আয় এবং কর্মসংস্থানের একটি নতুন দ্বার উন্মুক্ত করবে। এই উদ্যোগটির মূল উদ্দেশ্যগুলো হল- আমাদের দেশের এসএমই (ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসা) বিভাগকে শক্তিশালী করা, আলিবাবা ডট কমের মাধ্যমে এসএমই বিভাগকে বিশ্বব্যাপী পৌঁছে দেওয়া, প্ল্যাটফর্মটিতে নিবন্ধিত ২ কোটিরও বেশি ক্রেতার সাথে ব্যবসা স্থাপনের সুযোগ সৃষ্টি করা, স্থানীয় বা দেশীয়পণ্যগুলিকে ব্র্যান্ডে পরিণত করা ও নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে আর্থ-সামাজিক বিকাশ করা।

আলিবাবা গ্রুপ ২০১৮ সালে দারাজ অধিগ্রহণ করার পর বাংলাদেশের ইকমার্স ক্ষেত্রে উন্মুক্ত হয় নানা সম্ভাবনা। তারপর থেকে, জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক স্তরে বিকাশের জন্য প্রযুক্তি এবং অনলাইন বাণিজ্যে দারাজ বাংলাদেশ আলিবাবা গ্রুপ কে দক্ষতার পরিচয় দিতে সক্ষম হয়েছে এবং আলিবাবা ডটকমের স্ট্র্যটেজিক চ্যানেল পার্টনার হয়ে উঠেছে। তারই একটি অংশ হিসেবে স্থানীয় ব্যবসাকে বিশ্বব্যাপী নেওয়ার উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠানটি “ ডিএক্সপোর্টস” চালু করেছে।

দেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীদের এই সুযোগটি কাজে লাগাতে সাহায্য করতে ভবিষ্যতে দারাজ বাংলাদেশ স্থানীয় রফতানিকারকদেরকে বিনামূল্যে ই-কমার্স এডুকেশন, ই-কমার্স অপারেশন, এবং কাস্টমার সাপোর্ট সম্পর্কিত প্রশিক্ষণ দেবে।

২২ শে জুন, সকাল ১১ঃ০০ ঘটিকায় দারাজ ফেইসবুক পেইজে একটি ডিজিটাল প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যেমে নতুন উদ্যোগটির উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। এই ডিজিটাল প্রেস কনফারেন্সে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় বাণিজ্য মন্ত্রী, সংসদ সদস্য ও এক্সপোর্ট প্রোমোশন ব্যুরোর চেয়ারম্যান জনাব টিপু মুনশি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহ্‌মেদ‍ পলক ও এক্সপোর্ট প্রোমোশন ব্যুরোর ভাইস-চেয়ারম্যান জনাব এ.এইচ.এম. আহসান। বিশেষ অতিথি বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আলিবাবা ডটকমের কান্ট্রি ডিরেক্টর জনাব ফেলিক্স ইয়াং।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি, মাননীয় বাণিজ্য মন্ত্রী জনাব টিপু মুনশি বলেন “আমরা বিশ্বাস করি ‘ডি-এক্সপোর্টস’ প্রোগ্রামটি স্থানীয় ব্যবসা গুলোকে বৈশ্বিক অঙ্গনে পারফর্ম করার সুযোগ দেওয়ার পাশাপাশি আগামী বছরগুলোতে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগ লাইনটিকে বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতি দিতে ব্যাপক ভূমিকা পালন করবে”।

এ উপলক্ষ্যে দারাজ বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ মোস্তাহিদল হক বলেছেন “আমি আশা করছি, দেশের এই ক্রান্তিকালে দারাজের এই নতুন উদ্যোগটি বাংলাদেশের ব্যবসা ও অর্থনীতির জন্য ইতিবাচক ফলাফল আনতে সক্ষম হবে। শুধু তাই নয়, এর পাশাপাশি দারাজ বাংলাদেশ কাজ করে চলেছে দারাজ স্টোর, দারাজ ভিলেজ ও নন্দিনী প্রকল্পের মাধ্যমে উদ্যোক্তা (ই-বাণিজ্য ব্যবসায়ী) তৈরির লক্ষ্যে এবং সেই উপলক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটি ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করবে ৫০০ কোটি টাকা”।

play ludo at daraz app and win vouchers

লুডু খেলে লাখপতি হতে চান? যোগ দিন দারাজ লুডু লাখপতি টুর্নামেন্টে!

প্রথম পুরষ্কার এক লক্ষ টাকা সমমূল্যের ভাউচার,

পরবর্তী বিজয়ীরা পাবেন আকর্ষণীয় স্মার্টফোন!

দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপ দারাজ বাংলাদেশে এখন গ্রাহকরা খেলতে পারবেন শৈশবের মজার সব গেম অনলাইনে! সেই ধারাবাহিকতায় দারাজের জনপ্রিয় অনলাইন শপিং অ্যাপের অভিনব গেমিং প্ল্যাটফর্ম দারাজ ফার্স্ট গেইমসে (ডিএফজি) প্রথমবারের মত আয়োজন করা হল একটি প্রতিযোগিতামূলক অনলাইন লুডু টুর্নামেন্ট। ডিএফজিতে “লুডু লাখপতি” শিরোনামের এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী প্রথম বিজয়ীর জন্য পুরষ্কার হিসেবে থাকছে এক লক্ষ টাকা সমমূল্যের ভাউচার এবং দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বিজয়ীদের জন্য যথাক্রমে থাকছে হুয়াওয়ে ওয়াই নাইন প্রাইম (Huawei Y9 prime), ভিভো ওয়াই ফিফটিন (Vivo Y-15), অপ্পো এ ফাইভ এস (Oppo A5s) স্মার্টফোন। পঞ্চম থেকে পঞ্চাশতম বিজয়ীদের জন্য থাকছে দারাজের এক হাজার টাকার সমমূল্যের ভাউচার।

ludo khele lakhpoti

লুডু টুর্নামেন্টে অংশ নিতে আগ্রহীদের রেজিস্ট্রেশন ১৫ থেকে ১৮ জুন পর্যন্ত চলার কথা থাকলেও গ্রাহকদের ব্যাপক উৎসাহের কারনে সময়সীমা ২১ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে যেখানে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার মানুষ রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। তাই স্লট পূরণ হয়ে যাওয়ার আগেই দ্রুত রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। আর টুর্নামেন্টটি অনুষ্ঠিত হবে ২১ ও ২২ জুন, যেখানে ৭টি নকআউট রাউন্ডে লুডু খেলে জিততে হবে। আশা করা যাচ্ছে যে লুডু লাখপতি বাংলাদেশের প্রথম ও বৃহত্তম অনলাইন লুডু টুর্নামেন্ট হতে যাচ্ছে।

Daraz First Games (DFG)-daraz.com.bd

মূলত, দারাজ ফার্স্ট গেম এমন একটি গেমিং প্ল্যাটফর্ম যা রেসিং, অ্যাকশন, শুটিং এবং আর্কেড সহ বিভিন্ন ধরণের ফ্রি-টু-প্লে ক্যাজুয়াল গেমের অ্যাক্সেস সরবরাহ করে। 

লুডু গেমে রেজিস্ট্রেশন করবেন যেভাবেঃ

১। প্রথমে দারাজ অ্যাপ ডাউনলোড করুন,

২। দারাজ অ্যাকাউন্ট না থাকলে নতুন অ্যাকাউন্ট খুলুন,

৩। আপনার দারাজ অ্যাকাউন্টে লগ-ইন করুন,

৪। দারাজ অ্যাপ থেকে দারাজ ফার্স্ট গেমের আইকনটি সিলেক্ট করুন এবং গেম সেন্টারে প্রবেশ করুন,

৫। লুডু টুর্নামেন্ট ব্যানারে ক্লিক করুন,

৬। ব্যানারের নিচে রেজিস্টার বাটনে ক্লিক করুন,

৭। কিছুক্ষনের মধ্যে আপনি সফল রেজিস্ট্রেশনের একটি ম্যাসেজ পাবেন,

৮। টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ আগে একটি পুশ নোটিফিকেশন পাবেন।

play ludo and win 1 lac taka

লুডু গেমে অংশগ্রহণ করবেন যেভাবেঃ

  • গ্রাহক গেমটিতে যোগ দিতে একটি পিএন (পুশ নোটিফিকেশন)/ এসএমএস/ ই-মেইল পাবেন যেখানে প্রতিটি রাউন্ডের জন্য গেমের সময় উল্লেখ করা থাকবে।
  • গ্রাহকের দারাজ অ্যাপ হোম পেজ থেকে দারাজ ফার্স্ট গেমের (ডিএফজি) আইকনটি সিলেক্ট করতে হবে এবং ডিএফজি তে প্রবেশ করতে হবে
  • এরপর লুডু টুর্নামেন্ট ব্যানারে ক্লিক করতে হবে।

লুডু ছাড়াও অন্যান্য সকল মনোমুগ্ধকর গেমের সহজ সমাধান হতে পারে দারাজ ফার্স্ট গেম বা ডিএফজি। কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়া গেম খেলতে আপনার স্মার্টফোনে থাকা দারাজ অ্যাপ আপডেট করে নিতে হবে।

আরও পড়ুন,

{দারাজ ফার্স্ট গেম সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন}

download daraz app

Daraz CEO Bjarke Mikkelson Exclusively in Conversation with Bloomberg News

On 22nd April 2020, Daraz Founder and CEO, Bjarke Mikkelson, had an exclusive discussion with Bloomberg News.

In the conversation, Bjarke introduced Daraz as an e-commerce businesss that operates across several categories. He also mentioned that Daraz is operating in 5 Asian countries with around half a billion people. These countries include: Pakistan, Bangladesh, Sri Lanka, Nepal and Myanmar.

He then went on to talk about how the pandemic has affected the business operations. Bjarke said that some impacts are short-term while others are more long term in nature. The three main impacts he identified were:

  1. The Physical Impact due to the lock-down and curfew situation. Although this is a short-term effect but it’s had a significant impact on Daraz deliveries. Right now, Daraz is making 60-70% of the deliveries through its own logistic companies. He also added that Daraz has been having very optimistic discussions with the Government and they expect to get stable logistics infrastructure in 1-2 weeks.
  2. The Work from Home situation has been a challenge for everyone. However, Bjarke said that he has been “incredibly positively surprised” with how work from home has worked out thus far. According to him, the situation has also provided a learning opportunity on how we can deploy the power of digital work-space to engage employees and improve productivity. He found this to be a positive impact.
  3. And lastly, the surge in customer demand for essential products.

Talking about growth witnessed by Daraz across the 5 countries, Bjarke said that Daraz’s Bangladesh business and Sri Lankan business have seen the most growth – around 200% year on year. He attributed this large growth to factors like infrastructure investments paying off, good government regulations and policies and finally, having the right team on the ground.

When asked if this situation is going to pace up the shift from offline to online, Bjarke commented that although that’s inevitable, it’s not what Daraz is fighting for right now. He said that the current fight is to make sure that the economy and businesses return to track.

“If we have a bigger share of a small pie, we know that’s not something which is good for anybody”, commented Bjarke.

He further added that Daraz’s strategy is the same as it was before the pandemic situation which it to have the largest assortment from local and international suppliers, to use their technology to create convenience, to give a fun experience on the app and to provide a high quality service across all channels.

Regarding the Alibaba acquisition, Bjarke said that it has had 3 major impacts on Daraz:

  1. Daraz now has a technology platform powered by Alibaba which is perhaps the best in the world. He said that setting up a small e-commerce business isn’t that hard but managing a huge marketplace with millions of customers, thousands of effective sellers and more than 20 million products is very challenging and having strong tech really helps.
  2. The supply chain has significantly improved and Daraz is now not only selling cross-border, but has also integrated it’s whole supply chain to efficiently deliver to the end consumer.
  3. Daraz can now take Alibaba’s help on dealing with challenges that may be new for Daraz, but are not new for Alibaba. Alibaba has extensive knowledge and experience in the industry and it has shown great support every time Daraz has reached out.

Finally, Bjarke said that while the Covid-19 will have short-term effects, the situation will accelerate the shift from offline to online. He said that the market is pointing in the right direction and Daraz is very optimistic to see a 100%+ growth in the coming years.

corona test kits, masks and PPE donation to Bangladesh from Jack Ma and Alibaba foundation

জ্যাক মা ও আলিবাবা ফাউন্ডেশন এর করোনা টেস্ট কিট ও জরুরী মেডিকেল অনুদান ঢাকায়

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশের জন্য চীনের আলীবাবা ফাউন্ডেশন ও জ্যাক মা ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রেরিত প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রীর অনুদান আজ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেছে। বাংলাদেশ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের কাছে এই অনুদান হস্তান্তর করা হয় যা তারা পরবর্তীতে সারা দেশে বিতরণ করবে।

donation for covid 19 prevention from Jack Ma and Alibaba foundation

এই নিয়ে ফাউন্ডেশনটি ২৩টি এশীয় দেশে সর্বমোট ৭০ লক্ষ ৪০ হাজার মাস্ক, ৪,৮৫,০০০ পিস কোভিড-১৯ টেস্ট কিট, ১,০০,০০০ সেট  প্রতিরক্ষামূলক পোশাকসহ অন্যান্য চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ করেছে।

ভালবাসার নৌকা পাহাড় বাইয়া চলে

দেশের সর্ববৃহৎ অনলাইন  মার্কেটপ্লেসে দারাজ বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ মোস্তাহিদল হক  দু’টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি হিসেবে অনুদানটি গ্রহণ করেন।  এছাড়াও এই জনহিতকর উদ্যোগের সমর্থন স্বরূপ উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের ডিরেক্টর জেনারেল অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, মোহাম্মাদ সিরাজুল ইসলাম – হেলথ সার্ভিস ডিভিশনের অ্যাডিশনাল সেক্রেটারি; জনাব খলিল রহমান-অ্যাডিশনাল ফরেন সেক্রেটারি, মিনিস্ট্রি অফ ফরেন অ্যাফেয়ার্স  প্রমূখ।

ভালবাসার নৌকা পাহাড় বাইয়া চলে

“আমরা আশা করি এই অনুদানটি কোভিড -১৯ এর বিরুদ্ধে বাংলাদেশকে তাদের লড়াইয়ে সহায়তা করবে। আমরা সার্বক্ষণিক ভাবে বিশ্বের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে যাচ্ছি। যেখানে চিকিৎসা  সরবরাহের সর্বাধিক প্রয়োজন সেখানে তা সবসময় পৌঁছানো সহজ কাজ নয়, তবে এটি সম্পন্ন করার জন্য আমরা কঠোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি” – জ্যাক মা ফাউন্ডেশন

Corona test kit donation from Jack Ma and Alibaba foundation

এই অনুদান কোভিড -১৯ সংকটে ক্ষতিগ্রস্থ এশিয়া, উত্তর আমেরিকা, লাতিন আমেরিকা, ইউরোপ ও আফ্রিকা সহ অনান্য দেশগুলিতে বিভিন্ন ধরণের চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ করার লক্ষ্যে আলিবাবা ফাউন্ডেশন এবং জ্যাক মা ফাউন্ডেশনের একাধিক উদ্যোগ গুলোর মধ্যে একটি।

আগামী দিনগুলিতে আরও নানান উদ্যোগ এবং অনুদানের ঘোষণা দিতে পারে এই ফাউন্ডেশন।

a Jack Ma and Alibaba donation to Bangladesh

উল্লেখ্য, জ্যাক মা ফাউন্ডেশন এবং আলিবাবা ফাউন্ডেশন চীনে কোভিড-১৯ চিকিৎসায় সরাসরিভাবে প্রথম সারিতে থাকা জেজিং ইউনিভার্সিটি স্কুল অফ মেডিসিনের (ফাহজু) প্রথম অ্যাফিলিয়েটেড হাসপাতালের চিকিৎসক, অন্যান্য চিকিৎসক প্রশাসক এবং কর্মীদের কাছ থেকে কিছু প্রধান উপদেশ এবং অভিজ্ঞতা বিষয়ক একটি হ্যান্ডবুক প্রকাশনায়ও সহায়তা করেছে যা করোনাভাইরাসের বিস্তার কমানোর ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেছে।

চিকিৎসক, প্রশাসক এবং কর্মীরা হ্যান্ডবুকটি ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন covid-19.alibabacloud.com এই লিঙ্কে।

কোভিড-১৯ সর্বশেষ প্রচেষ্টা জানতে টুইটারে অনুসরণ করুন Jack Ma এবং Jack Ma Foundation এবং বিস্তারিত আরো জানতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

আরও পড়তে পারেন,

যেভাবে জ্যাক মা ও আলিবাবা ফাউন্ডেশন থেকে কোভিড-১৯ প্রতিরোধক সামগ্রী অনুদানের ঘোষণা এসেছিল 

Jack Ma foundation donations

Jack Ma Foundation and Alibaba Foundation Donate Medical Supplies

Jack Ma Foundation and Alibaba Foundation are donating critical supplies to 10 More Asian Nations to help fight against COVID – 19


The Jack Ma Foundation and Alibaba Foundation today announced plans to donate much-needed medical supplies to 10 more countries in Asia to help the global fight against COVID-19.

The governments of Afghanistan, Bangladesh, Cambodia, Laos, Maldives, Mongolia, Myanmar, Nepal, Pakistan and Sri Lanka will receive from the two foundations a donation totaling 1.8 million masks, 210,000 COVID-19 test kits, 36,000 pieces of protective clothing, as well as essential medical equipment and supplies that include ventilators and forehead thermometers.

“Go Asia! We will donate emergency supplies to 10 more countries across Asia,” said Jack Ma, who announced the latest foundation pledges through his Twitter account. “Delivering fast is not easy, but we’ll get it done!”

jack ma foundation is helping Bangladesh against coronavirus

Delivery of the donations will leverage the robust capabilities of the Electronic World Trade Platform (eWTP) to overcome the significant logistical and transportation challenge presented by the vast number of countries and their geographical remoteness.

“The epidemic outbreak has brought about challenges to global logistics. With the help of eWTP, we’re trying our best to ensure speedy transport and delivery to move the supplies to remote communities where they are most needed,” said Juntao Song, Secretary General of eWTP.

Earlier this week, the two foundations announced donations of medical supplies to Malaysia, Indonesia, Thailand and the Philippines that also leveraged eWTP’s strong logistics capability for speedy and reliable transportation and delivery. eWTP has a mandate to empower global SMEs to realize their full economic potential through reducing trade barriers and making it easier for them to participate in global trade.

Ready to download the Daraz App?

ceo of daraz.com

The CEO of Daraz in an Interview with Gigabits

Daraz is known to be the ecommerce leader in South Asia which has been built from a small startup in Pakistan to an important part of Alibaba’s global ecosystem. The company’s Founder and CEO, Bjarke Mikkelsen was in an interview with Gigabits where he discussed strategies and ethos driving its success.

In 2015, the CEO of Daraz, Bjarke Mikkelsen took a leap from investment banking to ecommerce industry because he decided to do something different. He wanted to target the ecommerce industry with great success, he wanted to be in the right industry at the right time in the right market in order to take advantage and do something cutting edge. It is quite surprising how he managed to make a huge success of the shift but according to him, the skills he brought from his previous career helped him quite a lot in the ecommerce. For him, shifting from London to South Asia was a more significant difference.

In his interview, he mentioned that Daraz aims to capture as big a market as possible but also want to make sure it’s all on the basis of organic growth and in a way that users stay engaged on the platform. If customers stop returning, it means Daraz needs to improve, be more relevant or be more fun he said.

Also, this growth resulted in an acquisition from Alibaba Group which is Asia’s ecommerce leader and this further helped Daraz expand exponentially. He said that new technology infrastructure has been a big win for Daraz and Alibaba has always give Daraz the flexibility to localize how Daraz implements products in the market.

He also appreciates the natural beauty of South Asian countries including Pakistan apart from just the business opportunity or talent in the market.

css.php