know about the mind healing websites

কোয়ারেন্টিনে যে ৭টি মজার ওয়েবসাইট সঙ্গী হতে পারে আপনার (পর্ব-২)

গত কয়েকদিনে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে কোভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাস। যেহেতু এই মারাত্নক ভাইরাসটি সহজেই মানুষে মানুষে সংক্রমণ ঘটাতে পারে- তাই নিজের ও আশেপাশের সবার নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে আমাদের উচিৎ খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসার বাইরে না বের হওয়া বা নিজ নিজ ঘরে কোয়ারেন্টিনে থাকা। কোয়ারেন্টিন মানে হচ্ছে বিচ্ছিন্ন থাকা। কিন্তু বর্তমান ডিজিটাল যুগে আমাদের সুযোগ আছে বিচ্ছিন্ন থেকেও ইন্টারনেটের মাধ্যমে সময় কাটানোর। তাই বিরক্ত বা হতাশ না হয়ে অনলাইনের বিভিন্ন মজার ও আজব ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে নিজেকে চাঙ্গা রাখতে পারেন।

চলুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ঘরে বসেও সুন্দর সময় কাটানোর মতো ১০টি অসাধারণ ওয়েবসাইট-

1) News of Future

news of future

আপনি যদি বর্তমান সময়ের করোনা ভাইরাস সংশ্লিষ্ট খবর দেখতে দেখতে বিরক্ত থাকেন কিংবা বিভিন্ন বিরক্তিকর গুজবের হাত থেকে রেহাই পেতে চান- তবে আপনার জন্যই এই ওয়েবসাইট। এটাকে নিকট ভবিষ্যতের একটি নিউজ পোর্টাল বলা যায়- তাই মহাকাশ জয়ের কিংবা নতুন নতুন আবিষ্কারের কথা জানতে এখুনি ভিজিট করতে পারেন এই কাল্পনিক খবরের সাইটইটি।

ভিজিট করতে ক্লিক করুন এখানে

2) Kick Ass

kick ass

এটি একটি ওয়েবভিত্তিক এপ। Launch Kick Ass নামক লাল বাটনে ক্লিক করলে ওয়েবসাইটের ওপর ক্ষুদে একটি ফায়ারিং স্পেসশিপ হাজির হবে। এই স্পেসশিপটি দিয়ে আপনি ওয়েবসাইটটিকের ভেঙ্গেচুরে ফেলতে পারবেন। তাছাড়া এটি বুকমার্ক করে অন্যান্য ওয়েবসাইট ধ্বংসের খেলাতেও মেতে উঠতে পারবেন খুব সহজে।

ভিজিট করতে ক্লিক করুন এখানে

3) Endless Horse

endless horse

নাম শুনেই বুঝতে পারছেন অসীম এক ঘোড়া নিয়ে কারবার এই ওয়েবসাইটের। খুবই সাধারণ এই সাইটে ভিজিট করলেই একটা ঘোড়াকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখবেন। এবং আপনি যত নিচেই নামেন না কেন পুরো ঘোড়াটাকে দেখতে পারবেন না।

ভিজিট করতে ক্লিক করুন এখানে

>> জেনে নিন করোনা ভাইরাসের কারণ, লক্ষণ ও প্রতিকার <<

4) Staggering Beauty

 

staggeringbeauty

অদ্ভুত এই ওয়েবসাইটে আপনি আজব ধরণের একটি ওয়েব টয়ের দেখা পাবেন। দুই চোখ বিশিষ্ট ওয়েভি টয়টাকে নিজের খেয়াল খুশিমতো নাড়াতে পারবেন। কিন্তু বেশি ঝাঁকাঝাঁকি করলেই… বাকীটা জানতে ভিজিট করুন মজার এই ওয়েব সাইটটি।

ভিজিট করতে ক্লিক করুন এখানে

5) Koalas To The Max

 

দারুণ এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করলে প্রথমেই আপনার নজরে আসবে একটি বড় বৃত্ত। কিন্তু টাচ করলে বা মাউস দিয়ে স্পর্শ করলেই এই বৃত্ত থেকে তৈরী হবে চারটি ছোট বৃত্ত। এরকম চারটি করে বৃত্ত তৈরী করতে থাকলে আপনার চোখে পড়বে কিউট একটি কোয়ালার উপর।

ভিজিট করতে ক্লিক করুন এখানে

6) Cat Bounce

cat-bounce

এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করলেই আপনি কিছু বেড়ালকে উপর থেকে পড়ে ড্রপ খেতে দেখবেন। চাইলে আপনি এই টু-ডি বিড়ালগুলোকে ছুঁড়ে ফেলতে পারেন। আবার বিড়ালের বৃষ্টিও উপভোগ করতে পারেন একটা বাটন চেপে।

ভিজিট করতে ক্লিক করুন এখানে

7) Rainy Mood

rainy mood

বৃষ্টির শব্দ কে না পছন্দ করে? এই ওয়েবসাইটে আপনি খুব সহজেই বৃষ্টির ঝুম শব্দ শুনতে পাবেন। পড়ালেখা, রিলাক্সেশন কিংবা মেডিটেশনের জন্য দারুণ একটি কাজের ওয়েবসাইট এটি। একবার ভিজিট করলে যে কেউই প্রেমে পড়তে বাধ্য।

ভিজিট করতে ক্লিক করুন এখানে

দারুণ ফানি এইসব ওয়েব সাইটে ভিজিট করে কোয়ারেন্টিনে থাকার সময়টাও আপনি উপভোগ করতে পারবেন পুরোদমে। তাই এখন বিরক্তিকে আনন্দে বদলে ফেলুন খুব সহজেই।

এছাড়া আরো পড়তে পারেন,
কোয়ারেন্টিনে সময় কাটানোর দারুণ ৭টি ওয়েবসাইট (পর্ব-১)
করোনা প্রতিরোধে যে ৫টি সামগ্রী আপনার এখনি দরকার!

Ready to download the Daraz App?

Daraz helps people to face lockdown

করোনাকালে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে ভরসা অনলাইন কেনাকাটা (২০২১)

সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও করোনা অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। টানা আট সপ্তাহ সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের নিচে থাকার পর আবার হু হু করে বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। ইতিমধ্যে দেশে জারি করা হয়েছে লকডাউন। বন্ধ অফিস-আদালত, মার্কেট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্রায় এক বছর পর ফের শুরু মানুষের ঘরবন্দী জীবনযাপন।

বিগত এক বছরে মানুষের জীবনযাত্রা সম্পূর্ণভাবে বদলে দিয়েছে করোনার বৈশ্বিক মহামারি। বাজারে যাওয়ার মতো সাধারণ কাজটি করতেও মানুষকে এখন ভাবতে হচ্ছে। সংক্রমণের ভয়ে মানুষ বেশিরভাগ সময় নিজেদের ঘরে অবস্থান করছে। তবে, করোনা হানা দেয়ার পর থেকে ঘরবন্দি মানুষের চলাফেরা বেড়েছে অনলাইনে। আগে যেখানে মানুষ কালেভদ্রে অনলাইনে বাজার করতো, এখন স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে মানুষ দৈনন্দিন বাজারসদাই হতে শুরু করে সবরকম কেনাকাটার জন্য ভরসা করছে অনলাইন প্লাটফর্মগুলোর উপর। দেশের সর্ববৃহৎ অনলাইন মার্কেটপ্লেস দারাজ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় ইতোমধ্যে প্রস্তুত হয়েছে এবং মানুষ যাতে সহজে ও নিশ্চিন্তে প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী কিনতে পারে সেই লক্ষ্যে গ্রহণ করেছে বিভিন্ন পদক্ষেপ।

তবে এখানে প্রশ্ন উঠতে পারে যে, এ সময় অনলাইন কেনাকাটা কি সম্পূর্ণ নিরাপদ? স্বস্তির বিষয় হচ্ছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনলাইন কেনাকাটা একইসাথে সহজ এবং নিরাপদ। নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস থেকে শুরু করে অর্ডারকৃত যেকোন পণ্য স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে গ্রাহকদের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছে দারাজ। দারাজে পণ্য অর্ডার করলে স্বল্প সময়ের মধ্যে মাস্ক এবং গ্লাভস পরিহিত দারাজ ডেলিভারি এজেন্ট হাজির হয়ে যাবে পণ্য হাতে। প্রতিষ্ঠানের নির্দেশ অনুযায়ী গ্রাহকের বাড়ির দরজায় জীবাণুমুক্ত করা হবে ডেলিভারি প্যাকেজটি। ফলে, প্যাকেট থেকে ভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা অনেকাংশেই দূর হবে। এছাড়া, প্যাকেট ছাড়াও টাকার মাধ্যমে ঘরে ঢুকে যেতে পারে প্রাণঘাতী ভাইরাসটি। গ্রাহকদের এমন দুশ্চিন্তা দূর করতে দারাজের রয়েছে স্পর্শহীন ডেলিভারি এবং মূল্য পরিশোধের ব্যবস্থা। অর্থাৎ, গ্রাহকরা চাইলে অনলাইনে মূল্য পরিশোধ করতে পারবে।

অনলাইনে অর্ডারকৃত পণ্য যারা ডেলিভারি দিয়ে থাকেন, তারা সহজে সংক্রমিত হতে পারেন বলে প্রথমে তাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করা সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। কর্মীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে দারাজ। প্রতিটি দারাজ ডেক্সে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে মাস্ক, গ্লাভস এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার। রাইডাররা ডেলিভারি দিতে বের হলে তারা ঠিকমত মাস্ক ও গ্লাভস পড়ছে কিনা এবং স্যানিটাইজার সাথে আছে কিনা সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখছে দারাজ। মাস্ক না পড়লে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না দারাজের ওয়্যারহাউজ, হাব ও অফিসের ভেতর। প্রবেশের দরজায় স্থাপন করা হয়েছে ডিসইনফেকশন বুথ, আর প্রবেশের পূর্বে মাপা হচ্ছে শরীরের তাপমাত্রা।

এছাড়া, দারাজের সকল ওয়্যারহাউজ, হাব ও অফিসে কঠোরভাবে মানা হচ্ছে ছয় ফিট শারীরিক দূরত্ব। দারাজের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে বিভিন্ন শিফটে ৫০ শতাংশ জনবল নিয়ে। দুই ঘন্টা পর পর সম্পূর্ণ অফিস পরিষ্কার করা হচ্ছে যাতে করোনা ভাইরাস মেঝে ও আসবাবে থাকতে না পারে এবং সবাইকে ঘন ঘন হাত ধুতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। হাত পরিষ্কারের সুবিদার্থে প্রতিটি ফ্লোরের প্রবেশ গেইটে রাখা হয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ডিসপেন্সার। প্রত্যেক দলের প্রধান দলের সদস্যদের স্বাস্থ্যাবস্থা প্রতিনিয়ত পর্যবেক্ষণ করছেন এবং কারও মধ্যে কোভিডের সামান্যতম উপসর্গ দেখা দিলেও দ্রুততার সাথে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি কর্মীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে বাড়ি বসে কাজ করার ব্যবস্থাও করেছে।

ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন, ডেলিভারি করছে দারাজ- এই মন্ত্রে সঙ্কটকালীন সময় সারা দেশে পণ্য ডেলিভারি করছে দারাজ। অনলাইন কেনাকাটায় স্বাস্থ্যসুরক্ষা নিশ্চিত করতে দারাজের উদ্যোগসমূহ যথেষ্ট সময় উপযোগী এবং কার্যকর। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নিয়মাবলী অনুসারে স্বাস্থ্যঝুঁকি হ্রাসে যা যা করা প্রয়োজন সব নিয়ম মেনে দক্ষতার সাথে সকল কাজ পরিচালনা করছে দারাজ। তাই, আপনার প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি নিশ্চিন্তে অর্ডার করতে বেছে নিতে পারেন দারাজ প্ল্যাটফর্মকে।

Daraz helps people to face lockdown

How Daraz Has Prepared for The 2nd Phase of Lockdown (2021)

As expected by many, an increase of COVID-19 cases is observed all over the globe and Bangladesh is no exception. As the overall situation in the country worsened rapidly, the government is forced to announce a new lockdown to control the condition in Corona.

In this second wave of Corona, COVID’19 disease has become stronger than before. The number of people infected by Corona and dying this year is not less than last year. So there is no alternate for self-care.

Let’s take a look at what to do in the second stream of Corona and life in the lockdown:

Why Bangladeshi Netizens Should Stay Home

  • By staying home, you are not exposed to others who may be coronavirus carriers outside of the home.
  • The fewer people you’re around, the less likely you are to be infected by coronavirus.
  • You are actually protecting your family members by staying home and out of the public during the COVID-19 crisis.
  • Social distancing can make it harder for the virus to spread. This will help us all to be safe.

How You Can Be Safe During the Second Wave of Coronavirus

  • Use home delivery from online shopping platforms like Daraz Bangladesh for medication, groceries, and daily needs.
  • If you need to go out in public places, maintain social distancing from others and cover your mouth and nose with an appropriate mask.
  • If it is possible, work from home.
  • Avoid using any kind of public transportation, taxis, or ridesharing as much as probable.
  • Wash your hands properly when you are outside.
  • Don’t touch your face and mouth with your hand. Otherwise, you will be affected easily.

Why Trusting Daraz Online Shop in This Lockdown

As online shopping can be your best friend in this lockdown, you can trust Daraz for safer and reliable home delivery. 

  • Daraz product packaging is being done with maximum care with hygiene and sanitation.
  • Cleaning the entire facilities at 2-hour intervals
  • Most employees work from home. Daraz is carrying out operations in shifts with 50% HR capacity.
  • Disinfection-booth at the entrance of the office/hub for measuring employees’ temperatures and maintaining consistent social distance by 6 feet.
  • Employees who are coming to the office, or riders who are taking deliveries – their health condition is checked first and only then they are allowed to make deliveries. disinfection-booth at the entrance of the facilities; 
  • All employees involved in delivery are using the best safety equipment to ensure proper safety.
  • Every package is instructed to be delivered to the customer’s doorstep so that a germ-free delivery is confirmed
  • Daraz riders are also trained and monitored to maintain proper protective equipment while on the roads and completing deliveries
  • You can pay online which is a quite safer method in this pandemic situation. Daraz is also encouraging touchless delivery and touchless transaction among the customers for their protection.

Therefore when your and your family’s safety is the prior issue, Daraz online shopping can be your best companion in terms of affordable price and safety measurement. And we’re trying our best to ensure the most dependable online service to our customers in this pandemic situation.

Stay home, let us deliver.

css.php